Recent News
দুই লাখ টাকা জরিমানার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে সহজ ডটকমের রিট

মুক্তিযুদ্ধ ৭১ নিউজ, বিশেষ প্রতিনিধি : রেলখাতের অব্যবস্থাপনা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী মো. মহিউদ্দিন হাওলাদার রনির করা অভিযোগের ভিত্তিতে সহজ ডটকমকে দুই লাখ টাকা জরিমানার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিটে জরিমানার আদেশ স্থগিত চাওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার সহজ ডটকমের পক্ষে ব্যারিস্টার তানজীব উল আলম এ রিট দায়ের করেন।

রিটে বাণিজ্য সচিব, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। বিচারপতি মো. খসরু জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিটের ওপর শুনানি হতে পারে।

গত ১৩ জুন রেলওয়ের ওয়েবসাইটে ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার টিকিট কাটার চেষ্টা করেন মহিউদ্দিন রনি। অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেমে বিকাশ থেকে ভেরিফিকেশন কোড পাঠানো হয়। কিন্তু পিন নম্বর দিয়ে সেটি নিশ্চিত করার আগেই বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে টিকিটের মূল্য কেটে নেওয়া হয়। অর্থাৎ তিনি টিকিট পাননি, আবার টাকাও নিয়ে গেল। ঘটনার পর রনি কমলাপুর রেলস্টেশনে গিয়ে রেলওয়ের সার্ভার রুমে অভিযোগ করেন। সেখান থেকে কারণ হিসেবে জানানো হয়, সিস্টেমের কারণে এমন হয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

রনির অভিযোগ, তখন তার চোখের সামনে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে তার বুকিং করা ৬৮০ টাকার আসনটিই আরেক যাত্রীর কাছে ১ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি করেন স্টেশনের কম্পিউটার অপারেটর। এরপর ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরে ১৪ ও ১৫ জুন দুই বার অভিযোগ করেন তিনি।

তবে রনির এসব অভিযোগ সঠিক নয় বলে দাবি সহজের। তাদের দাবি, টিকিট দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের অবহেলা ছিল না। সোমবার পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সহজের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটের সব নিয়ম ও শর্ত মেনেই রনিকে সেবা দেওয়া হয়। বাংলাদেশ রেলওয়ের নিয়ম অনুযায়ী (যা টিকিটিং অ্যাপ ও ওয়েবসাইটেও উল্লেখ আছে) ৮ কর্মদিবসের মধ্যে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও দ্রুততম সময়ে সেবা নিশ্চিত করায় রনি পরবর্তী তিন কর্মদিবসের মধ্যে তার মোবাইল অ্যাকাউন্টে টিকিটের মূল্য বাবদ প্রদত্ত সম্পূর্ণ টাকা ফেরত পেয়ে যান।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনের টিকিট কাউন্টারের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন শুরু করেন মহিউদ্দিন রনি। দাবি আদায়ে লংমার্চও করেন। রেলের অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে রনির এ কর্মসূচি বেশ আলোড়ন তৈরি করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার সমর্থনে লেখালেখিও হয়। রাজনৈতিক নেতারাও তাকে সমর্থন যুগিয়েছেন।

রনির অভিযোগের বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সভাকক্ষে শুনানি হয় ২০ জুলাই। শুনানি শেষে রেলের টিকিট বিক্রির দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান সহজ ডট কমকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

জরিমানার সিদ্ধান্ত আসার পর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেন, তার (রনি) এ অভিযোগ এবং দৃঢ় আন্দোলন ভোক্তা অধিকারের ব্যাপারে সবার চোখ খুলে দিয়েছে। ভোক্তার হয়রানি দ্রুত নিরসন করতে হবে। রনি টিকিটের জন্য পেমেন্ট করেও টিকিট পায়নি এবং সে এর মধ্যে বসে না থেকে তাদের অফিসে গিয়েছে এবং সেখানে যাওয়ার পর সহজের কর্মকর্তা তাকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেছে। তার বুক করা সিটই অন্য কারো কাছে বেশি দামে বিক্রি করা হয়েছে। একজন ভোক্তা হিসেবে তার অধিকার ক্ষুণ্ন হয়েছে।

News Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *